HomeEducation Newsবড়সড় বদল আসতে চলেছে রাজ্যের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায়, জোর দেওয়া হবে MCQ-এ।

বড়সড় বদল আসতে চলেছে রাজ্যের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায়, জোর দেওয়া হবে MCQ-এ।

পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষার্থীদের কাছে জীবনের অন্যতম একটি বড় পরীক্ষা হল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা(HS Exam)। মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসার দু’বছর পরে ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় বসতে হয়। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলের উপর ভিত্তি করে তারা বিভিন্ন কলেজে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পড়ার সুযোগ পান। সাম্প্রতিক পশ্চিমবঙ্গে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় বড়সড় বদল(WB HS Exam Pattern Change) আনতে চলেছে রাজ্য সরকার(West Bengal State Government)। কেন্দ্রীয় শিক্ষানীতির বিপরীতে হেঁটে রাজ্যের নতুন শিক্ষানীতি অনুমোদিত হয়েছে। রাজ্যে শিক্ষানীতি পর্যালোচনা করার জন্য একটি কমিটি তৈরি করেছিল রাজ্য। গত সোমবার সেই কমিটি একটি রিপোর্ট পেশ করেছে। রিপোর্টে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বদল আনা হয়েছে। স্কুল স্তর থেকেই সেমিস্টার ভিত্তিক পরীক্ষা(Semester) এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষাতে প্রশ্নপত্রের ধরনের বদল আনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফে।

এবার থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা সম্পূর্ণ নতুন ধরনের প্রশ্নে পরীক্ষা দেবেন। এতদিন পর্যন্ত উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নের প্রথম ভাগে থাকত মাল্টিপেল চয়েস ভিত্তিক প্রশ্ন এবং পরের ভাগে থাকত বিশ্লেষণধর্মী বড় প্রশ্ন। তবে রাজ্যের নতুন শিক্ষানীতিতে এই ধরনের প্রশ্নের ধাঁচ সম্পূর্ন বদল করা হবে। এবার থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রশ্নের মাল্টিপল চয়েস ভিত্তিক প্রশ্নের(MCQ Questions HS) সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে। ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার্থেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থা পরিচালিত হবে ৪+৪+২+২ নীতিতে।

See also  নেতাজি সুভাষ মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু হলো স্নাতকে ভর্তির প্রক্রিয়া, জেনে নিন সমস্ত খুঁটিনাটি।

অন্যদিকে কেন্দ্রের তরফের মাধ্যমিক পরীক্ষা তুলে দেবার কথা বললেও রাজ্যের তরফের মাধ্যমিক পরীক্ষা(Secondary Exam) এখনই তুলে দেবার কোন চিন্তা ভাবনা নেই। তবে বিশ্ববিদ্যালয় স্তরে পড়ার সময় ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনায় যাতে কোনরকম সমস্যা না হয়, তাই জন্য এখন থেকেই একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীতে সেমিস্টার ভিত্তিতে পড়াশোনা হবে।

একাদশ শ্রেণি এবং দ্বাদশ শ্রেণীতে মোট দুটি করে চারটি সেমিস্টারে পরীক্ষা হবে। তার ভিত্তিতেই নম্বর দেওয়া হবে। রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর এবং শিক্ষা মন্ত্রী জানিয়েছেন যে, কেন্দ্রের দেখানো পথে নয়, বরঞ্চ ছাত্রছাত্রীদের সুবিধার কথা ভেবেই প্রয়োজনীয় বদল আনা হয়েছে শিক্ষায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

RELATED ARTICLES

Most Popular